সালারে TMC বিধায়ক হুমায়ূন পুত্রের বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ ! চক্রান্ত ?

মধ্যবঙ্গ নিউজ ডেস্কঃ জমি জবরদখল করে নির্মানের অভিযোগ উঠল ভরতপুরের তৃণমূল বিধায়ক হুমায়ুন কবীরের ছেলের বিরুদ্ধে। সালার কলেজ রোড এলাকায় জমি নিয়ে শুরু হয়েছে এই বিতর্ক। বিধায়কের বিরুদ্ধে হুমকি দেওয়ার অভিযোগও তুলেছেন শক্তিপুরের বাসিন্দা আনিসুর রহমান। আনিসুর রহমান ও ভরতপুরের বিধায়ক হুমায়ুন কবীর দুজনই শক্তিপুর থানার মানিক্যহার এলাকার বাসিন্দা। প্রতিবেশি হওয়ায় দুনের মধ্যে ভালো সম্পর্ক ছিল বলে দাবি আনিসুরের । আনিসুর রহমানের দাবি, ২০০৮ সালে সালার কলেজ রোডে ৮ কাঠা জমি কেনেন তিনি । অভিযোগ, সম্প্রতি এই জায়গার মধ্যে ১৬ ডেসিম্যাল জায়গা দখল করে নির্মান কাজ শুরু করেন বিধায়ক পুত্র গোলাম নবী আজাদ । এই ঘটনায় বিধায়কের ছেলের বিরুদ্ধে প্রভাব খাটিয়ে জোর করে জায়গা দখলের অভিযোগ তুলছেন আনিসুর রহমানের স্ত্রী রেহেনা খাতুনও ।

যদিও এই জমি নিয়েই শুরু হয়েছে টানাপোড়েন । সালারের বাসিন্দা মহম্মদ কাউসার হোসেন দাবি করেছেন , ওই জমির মালিক ছিলেন তিনিই। জমি বিক্রি করেছেন বিধায়ক পুত্রকে। এই ঘটনায় থানা পুলিশ এমনকি পুলিশের উচ্চপদস্থ আধিকারিকের কাছে অভিযোগ করার পরেও কোন কাজ হয়নি বলে অভিযোগ আনিসুর রহমানের। যদিও তাঁর ছেলের বিরুদ্ধে জোর করে জমি দখল করে নির্মান কাজের অভিযোগ মানতে নারাজ ভরতপুরের বিধায়ক হুমায়ুন কবীর । তাঁর দাবী এই জায়গা মহম্মদ কাউসার হোসেনের কাছ থেকে তাঁর ছেলে কিনেছেন । জমির সমস্ত কাজপত্র রয়েছে বলে দাবি করেছেন তিনি । এই ঘটনায় চক্রান্তেরও অভিযোগ তুলেছেন তৃনমূল বিধায়ক ।