শাক-সব্জির আগুন দাম, নাভিশ্বাস আম জনতার

নিজস্ব প্রতিবেদনঃ বাজেট ফেল, বাজারে এসে ঠিক এই কথাই বলছেন ক্রেতারা। কি সব্জি কিনবেন আর কি কিনবেন না- কুল কিনারা পাচ্ছেন না অনেকেই। অগাস্টের শেষ লগ্নে এসে সব্জির আগুন দামে নাভিশ্বাস উঠেছে মধ্যবিত্তের। বাজার করতে গিয়ে চিন্তার ভাঁজ ক্রেতাদের কপালে। ব্যাগ ভর্তি করে বাজার করা আজ যেন অতীত। আকাশ ছোঁয়া সব্জির দাম ফলে পরিমাণে কম কিনতে হচ্ছে সব্জি। বহরমপুর শহরের বিভিন্ন সব্জির বাজারে সব্জির দাম ধরাছোঁয়ার বাইরে। আলুর সাথে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে বিভিন্ন শাক সব্জির দাম। এভাবে দাম বৃদ্ধির ফলে হেঁশেল সামলাতে হিমশিম খাচ্ছেন আম জনতা।

বুধবার শহরের সব্জির বাজারে সব্জির দর যদি দেখি- তাহলে দেখা যাবে- এদিন পটল বিক্রি হয় ৫৫ থেকে ৬০ টাকা কেজি দরে, করলা ৫০ থেকে ৬০ টাকা কেজি, ঝিঙে- ৩০ টাকা কেজি, চালকুমড়ো- ৩০ টাকা কেজি, বেগুন ৫০ টাকা কেজি, ঢ্যাঁড়শ ৪০ টাকা কেজি, টম্যাটো- ৬৫ টাকা কেজি, লাফা- ৫০ টাকা, লঙ্কা ১৫০ টাকা কেজি। অবাক করার মতো সব্জির দামে মাথায় হাত ব্যবসায়ীদেরও। কারণ লাগাম ছাড়া দামে বেচাকেনা হচ্ছে কম।

শাক সব্জির অগ্নিমুল্যের কারণ কি? সব্জি ব্যবসায়ীরা বলছেন, অতি বৃষ্টির জেরে জমিতে জল জমায় সব্জি নষ্ট হচ্ছে ব্যাপক।