ঢ্যাঁড়শের দাম নেই, রাস্তায় ভেন্ডি ছড়িয়ে বিক্ষোভ কৃষকদের

মধ্যবঙ্গ নিউজ ডেস্কঃ গ্রীষ্মকালীন সবজি ঢ্যাঁড়শ। বাজারে এখন ভেন্ডির দাম যথেষ্ট। কিন্তু ঢ্যাঁড়শ বা ভেন্ডি চাষ করে লাভ হচ্ছে না চাষিদের। এক দিকে চাষিরা বলছেন দাম নেই, অন্যদিকে বাজারে চড়া দাম ভেন্ডি বা ঢ্যাঁড়শের। এ কেমন বৈপরীত্য? চাষিদের দাবি, ভেন্ডি চাষ করে লাভ হচ্ছে না। সোমবার হরিহরপাড়ার মেয়ারবাগান পাইকারি হাটে ভেন্ডির দাম ছিল ২০ থেকে ২২ টা কিলো। এতেই ক্ষোভ দেখান ভেন্ডি চাষিরা। ভেন্ডি চাষিদের দাবি পাইকারি ব্যবসায়ীরা এদিন সকালে যেখানে আরও বেশি দামে ভেন্ডি কিনছিল তা বেলা বাড়তে কমতে কমতে ১৮ টাকা কিলোতে চলে আসে। এতেই রাস্তা ভেন্ডি ফেলে বিক্ষোভ দেখান চাষিরা। সবজি চাষি শম্ভু বলেন, সার, বিষ এবং জমি থেকে তা তুলতে যে খরচ তা এই দামে উঠছে না।

যদিও পাইকারি ব্যবসায়ীদের দাবি তাঁরা যে দামে ভেন্ডি কিনছেন তা বাইরে বিক্রি করতে সমস্যা হচ্ছে। এদিন সকাল থেকে ২০ টাকা কেজি দামেই ভেন্ডি কেনা হচ্ছিল। পাইকারি বাজারে যেখানে ভেন্ডির দাম তলানিতে। আর সেখানে খুচরো বাজারে ছবিটা কিন্তু একেবারেই আলাদা। পাইকারি থেকে খুচরোর দামের অনেক তফাৎ মিলছে। বহরমপুরের স্বর্ণময়ী বাজারে এদিন ভেন্ডির দাম ছিল ৮০ থেকে ১০০ টাকা কিলো। এখানকার ব্যবসায়ীদের দাবি পাইকারি বাজারে দাম বেশি থাকায় খুচরো বাজারে দাম কিছুটা চড়া। তবে যায় হোক পাইকারি বাজারে গিয়ে যেখানে দাম নিয়ে ক্ষোভ দেখা দিচ্ছে চাষিদের মধ্যে, সেখানে খুচরো বাজার তো অন্য কথা বলছে। খুচরো বাজারের ব্যবসায়ীদের মুখেও অন্য কথা।