সামসেরগঞ্জে ৮ বছরের মেয়েকে খুন করল মা ! মনের অন্ধকারে বিপদ নাকি অন্য কোন কারণ ?

মাসুদ আলিঃ মধ্যবঙ্গ নিউজঃ  এক রত্তি মেয়ে। সেই মেয়েকেই গলা টিপে খুনের অভিযোগ উঠল মায়ের বিরুদ্ধে।   বুধবার সকালে  ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে মুর্শিদাবাদের সামসেরগঞ্জের মধ্য চাচন্ড গ্রামে । মৃত শিশুর নাম নাজিফা খাতুন(৮)। অভিযোগ, গলা টিপে খুন করেছে সৎ মা লালমন বিবি ।  খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌছায় সামসেরগঞ্জ থানার পুলিশ। দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জঙ্গিপুর হাসপাতালে পাঠানো হয়। ইতিমধ্যেই অভিযুক্ত লালমন বিবিকে আটক করেছে সামসেরগঞ্জ থানার পুলিশ। পাঁচ মাসের সন্তান রয়েছে লালমন বিবির।

পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, সামসেরগঞ্জের মধ্য চাচন্ড গ্রামের আলাউদ্দিন শেখ  বছর তিনেক আগে সুতি থানার ছাপঘাঁটি এলাকার লালমন বিবিকে   বিয়ে করেন । প্রথম স্ত্রী মানসিক ভারসাম্যহীন । সেই কারণেই দ্বিতীয় বিয়ে বলে দাবি আলাউদ্দিনের পরিবারের।   অভিযোগ, প্রথম পক্ষের তিন সন্তান থাকায় মাঝে মধ্যেই  সমস্যা হতো পরিবারে । মঙ্গলবার রাতে  কথা কাটাকাটিও হয় । আলাউদ্দিনের  অভিযোগ, রাতে বাড়িতে ছিলেন না তিনি। তখনই শিশুকন্যাকে   লালমন বিবি খুন করেছে। সকালে মেয়ের ঘুম ভাঙাতে গিয়ে দেখেন, মৃত্যু হয়েছে মেয়ের ।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে  আসে সামসেরগঞ্জ থানার পুলিশ। দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়।   অভিযুক্ত সৎ মা কে আটক করে নিয়ে যায় পুলিশ। কী কারণে এই খুন, তদন্ত করে দেখছে পুলিশ। মনোবিদদরা জানাচ্ছেন, এই রকম খুনের সাথে যোগ থাকে বিভিন্ন রকম অবদমিত মানসিক সমস্যার। সদ্য মা হওয়া লালমন  কোন সংকটে ভুগছিলেন কিনা  তা নিয়েও উঠছে প্রশ্ন ?